হঠাৎ; বাড়ছে ভোজ্যতেলের” দাম সহ আরও।

হঠাৎ; বাড়ছে ভোজ্যতেলের” দাম সহ আরও।
হঠাৎ করেই বাড়তে শুরু করেছে ভোজ্যতেলের দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে রাজধানীতে দাম বেড়ে গেছে লিটারে ৫-টাকা পর্যন্ত। আর খোলা

সয়াবিনে বেড়েছে ৩- থেকে ৪- টাকা। যদিও বিক্রেতাদের দাবি, আগের দামেই বি,ক্রি করছেন তারা। এ অবস্থায় বাজার নি,য়,ন্ত্র,ণে সরকারের কঠোর অবস্থান চান ভোক্তারা;

ক্রেতারা অভিযোগ করে জানান, তেলের দাম প্রতিনিয়তই বাড়ছে। প্রতি সপ্তাহেই লিটার প্রতি দাম বাড়ছে ৪- থেকে ৫- টাকা করে। সীমিত আয়ে এভাবে নিত্যপন্যের দাম বাড়লে জীবনধারণ আরও কঠিন হয়ে উঠবে। সরকারের উচিত কঠোরভাবে বাজার মনিটরিং করা;।

নিত্যপণ্যের বাজারে বছরজুড়ে হিমশিম খাওয়া ক্রেতারা জানায়, এক সপ্তাহ আগের তুলনায় বাড়তি দামে কিনতে হচ্ছে বোতলজাত সয়াবিন তেল;।

গত ফেব্রুয়ারি থেকে কয়েক দফা বেড়ে ১৩৫- লিটারের বোতলজাত সয়াবিন তেল মে-র শেষ দিকে দাঁড়ায় ১৫৩- টাকায়। ১লা জুলাই এসে লিটারে ৪- টাকা কমানো হয় সয়াবিনের দাম। তেলের বাজারের অস্থিরতার কথা স্বীকার করলেও বোতলজাত সয়াবিনের দাম বেড়েছে- ভোক্তাদের এমন দাবি মানতে নারাজ বিক্রেতারা। তবে, কমিশন বন্ধ করে দেয়ার প্রভাব পড়েছে বলে জানান তারা”।

ব্যবসায়ীরা জানান, কমিশনটা উঠিয়ে দেওয়ায় অনেকেই এখন লিটার প্রতি ৫- টাকা করে বেশি বিক্রি করছে। তেলের দাম বাড়েনি। তবে বুঝা যাচ্ছে না সামনে তেলের দাম বাড়বে নাকি কমবে”।

ভোজ্য তেলের দাম যেন আর ঊর্ধ্বমুখী না হয় সেদিকে সরকারের নজরদারি বাড়ানোর দাবি ভোক্তাদের।
টি,সি,বি,র দৈনিক বাজার হালনাগাদের তথ্যে দেখা যায়, এক মাসের ব্যবধানে খোলা সয়াবিনের দাম বেড়েছে লিটারে ৭ টাকা। তবে মাসজুড়ে একই দামে বিক্রি হচ্ছে বোতলজাত সয়াবিন?

এদিকে রাজধানীর বাজারে বেড়েছে চিনির দর। খোলা চিনি কেজিপ্রতি ৭৭ থেকে ৮০- টাকায় উঠেছে। আর বাজারভেদে প্যাকেটজাত চিনি বিক্রি হচ্ছে কেজিপ্রতি ৮০- থেকে ৮২- টাকায়।

কারওয়ান বাজারের খুচরা বিক্রেতারা বলছেন, তিন দিনে খোলা চিনির দাম কেজিপ্রতি ৭- থেকে ৮- টাকা বেড়েছে। যার দোকানে আগে কেনা চিনি ছিল, তিনি বিক্রি করছেন ৭৭-৭৮/ টাকা কেজিতে। যে খুচরা বিক্রেতা নতুন করে কিনেছেন, তিনি বিক্রি করছেন ৮০- টাকা কেজি দরে,,

কারওয়ান বাজারের মুদিদোকানি মো: বাবলু জানান, ৫০, কেজির এক বস্তা চিনির দাম পাঁচ দিনে ৬০০ টাকা বেড়েছে। কোম্পানিগুলোও প্যাকেটজাত চিনির দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে।
সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) হিসাবে, এক সপ্তাহ আগে বাজারে প্রতি কেজি চিনির দাম ৬৮ থেকে ৭৫ টাকা ছিল। এখন তা ৭৫ থেকে ৭৭ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। পাইকারি ব্যবসায়ীরা বলছেন, বিশ্ববাজারে চিনির দাম অনেকটাই বেড়ে গেছে। এ কারণে দেশেও বাড়তি;

About jacob done

Check Also

এহসান” গুরুপ নিয়ে খ্যাত, কুয়াকাটা হুজুরের মন্তব্য!

এহসান” গুরুপ নিয়ে খ্যাত, কুয়াকাটা হুজুরের মন্তব্য! ”হেলিকপ্টার হুজুর” খ্যাত কুয়াকাটার মাওলানা মো. হাফিজুর রহমান’ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *