Breaking News

জিনের” বাদশার গুপ্ত;ধনের ফাঁ,দ থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী।

জিনের” বাদশার গুপ্ত;ধনের ফাঁ,দ থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী।
জিনের বাদশার খপ্পরে পড়ে গুপ্তধনের আ;শায় ময়মনসিংহ থেকে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ যাওয়ার পথে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ;

সোমবার ২৩-আগস্ট; রাতে বাহন পরিবহন নামে রংপুরগামী একটি যাত্রীবাহী বাস থেকে ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে বগুড়ার শাজাহানপুর থানা পুলিশ; উদ্ধার হওয়া ওই স্কুলছাত্রী ম;য়মনসিংহের ফুলপুর থানার দিউ গ্রামের বাসিন্দা;। সে স্থানীয় একটি স্কুলের এসএসসি পরিক্ষার্থী!

ওই ছাত্রীর বড় ভাই জানান, দুদিন ধরে কথিত; জিনের বাদশা পরিচয়ে তার ছোট বোনকে; ফোন করে পরিবারের মা, বাবা, ভাই, বোনসহ হুবহু বিবরণ দিয়ে বিশ্বাস জোগায়। এরপর গু;প্ত;ধনের প্র’লোভন এবং পরিবারের কাউকে কিছু না বলে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে আসতে বলে।

সেখান থেকে ‘তাকে ;পলাশবাড়ী নিয়ে গুপ্তধন দেওয়ার কথা বলা হয়। কাউকে; কিছু বললে মা, প্রতিবন্ধী ভাইসহ পরিবারের সবাইকে মেরে ফেলার ভয়ভীতি দেখানো হয়;। এমতাবস্থায় সোমবার বেলা ১১’টার দিকে স্কুল থেকে অ্যাসাইনমেন্ট আনার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয় মেয়েটি। সময় মতো বাড়ি না

ফিরলে অনেক খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে পু’লিশে জানানো হয়’।

ফুলপুর থানার এসআই জাহিদ জানান, স্কু;লছাত্রী নিখোঁজের খবরে পুলিশ অভিযান; শুরু করে। পরে বগুড়ার শাজাহানপুর থানা পুলিশের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার; করা হয়।

শাজাহানপুর থানা সূত্রে জানা; যায়, মেয়েটি বাসযোগে গাইবান্ধার পলাশবাড়ি যাচ্ছিল। বাসের মধ্যে মেয়েটির ফোনে একাধিকবার ফোন আসছিল। মেয়েটি ফোনে কথা; বলার সময় তার; পাশে বসা যাত্রী বগুড়া সরকারি আজিজুল ;হক কলেজের ইতিহাস বিভাগের প্রধান প্রফেসর রমজান আলী আকন্দসহ অন্যান্য; যাত্রীর সন্দেহ হয়। মেয়েটির পরিচয় জানতে চাইলে ;অসংলগ্ন কথা বলে। তখন পুলিশকে বিষয়টি জানালে রাত ৯টার দিকে শাজাহানপুর থানা ;এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার; করে পুলিশ।

শাজাহানপুর থানার ভার;প্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি;) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, মেয়েটিকে উদ্ধারের পর পরিবারকে খবর দেয়া হয়। স্বজনদের জিম্মায় মেয়েটিকে দেয়া; হয়েছে।

About jacob done

Check Also

১- ক্লাসের মাত্র” একজন ছাত্রী’ বাকি ‘মেয়েদের বিয়ে!

১- ক্লাসের মাত্র” একজন ছাত্রী’ বাকি ‘মেয়েদের বিয়ে! দেড়বছর করোনার ঢেউয়ে নিমজ্জি’ত ছিল দেশের শিক্ষাঙ্গন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *